,

আমলায় মেশিন দিয়ে ধান কাটার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা

কম্বাইন্ড হারভেস্টারে ধান কাটলে কৃষকদের খরচ ও সময় বাঁচবে



আমলা অফিস ॥ চলতি মৌসুমে কৃষকদের ধান কাটার ক্ষেত্রে শ্রমিক সংকট ও খরচ কমাতে কুষ্টিয়ার মিরপুরের আমলায় কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিনের ধান কাটার উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (১৬ নভেম্বর) বেলা ১১টায় “ভিনসেন কন্সালটেন্সি প্রাইভেট লিমিটেড” এর উদ্যোগে আমলা ওয়ের্স্টান টাওয়ারে এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় কৃষক ও উপস্থিত ব্যক্তিদের সাথে এক মতবিনময় সভাও অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ভিনসেন কন্সালটেন্সি প্রাইভেট লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সরোয়ার জামান ঢালীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন ও বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস।

এসময় তিনি বলেন, ‘কম্বাইন্ড হারভেস্টার’ ধান কাটা, ঝাড়াই ও মাড়াই এর কাজে খুবই সময় উপযোগী। ধান কাটায় প্রচলিত পদ্ধতির তুলনায় সময় ও খরচ অনেক কম লাগে। আর মাঠে-ঘাটে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে অনেক ধানের অপচয় ও হয় না। তিনি আরো বলেন, কম্বাইন্ড হারভেস্টার দিয়ে এক একর জমির ধান কাটা-মাড়াই ও বস্তায় ভরতে সময় লাগে মাত্র এক ঘণ্টা। কৃষক পর্যায় এটি খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে দিন দিন। মিরপুর উপজেলার কৃষকরা আধুনিক ও যান্ত্রিক উপায়ে চাষাবাদ শুরু করেছেন। এটি ব্যবহারের ফলে কৃষকদের যেমন সময় অন্যদিক অর্থেরও অপচয় রোধ হবে। সেই সাথে কৃষকরা বেশ লাভবান হবেন বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। সভাপতির বক্তব্যে ভিনসেন কন্সালটেন্সি প্রাইভেট লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সরোয়ার জামান ঢালী বলেন, “ভিনসেন কন্সালটেন্সি প্রাইভেট লিমিটেড কৃষকদের উন্নয়নে সর্বদা পাশে রয়েছেন। আপনারা ‘কম্বাইন্ড হারভেস্টার’ দিয়ে ধান, গম খুব সহজেই কম সময়ে কর্তন, ঝাড়াই, মাড়াই ও বস্তাবন্দি করতে পারবেন। আর খরচও সনাতন পদ্ধতির তুলনায় অর্ধেক। বিশেষ করে দ্রুত সময়ে ফসল ঘরে তুলতে খুবই কার্যকরী এ ‘কম্বাইন্ড হারভেস্টার’। অনুষ্ঠানে নওদা আজমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার, আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা, সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি, মিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমেশ চন্দ্র ঘোষ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মুন্সি সুলতানুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম লিটন, নওদা আজিমপুর বিএম কলেজের প্রভাষক সরোয়ার হোসেন, শিক্ষক আমিরুল ইসলাম, সাইফুজ্জামান হিরা প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সার্বিকভাবে তত্ত্ববধায়ন করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক আসাদুুল হক মিল্টন। এসময় উক্ত এলাকার প্রায় দুই শতাধিক কৃষক/কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন।


     এই বিভাগের আরো খবর